ফণ্ট ডাউনলোড

নীড় প্রকাশনা দৃশ্য-শ্রাব্য প্রকাশনা রূপে রূপে অপরূপ

রূপে রূপে অপরূপ

প্রকাশকাল: ১৯ ফাল্গুন ১৪২১, ৩ মার্চ ২০১৫
ধরণ: ধ্বনিমুদ্রিকা
রবীন্দ্র-সুরবাণী বিচিত্রা
 
সুরের চলনকে নিয়মিত করে ছন্দ, ছন্দ আবার চলে ভাবের পিছু পিছু। আর, কখনো কখনো একই বাণীতে ধীর আর দ্রুত গতির দুই সুরে দুরকমের ভাব মূর্ত হয়। গান শুনে অনুভব করা যায়, ধীর লয়ের গানের আত্মগত-উচ্চারণভঙ্গিতে ভাবের গভীরতা বিভাসিত। অন্যপক্ষে দ্রুত লয়ের চঞ্চল চলন বাণীর ভাবে ভিন্নতর ব্যঞ্জনা স্ফূর্ত করে। একক কণ্ঠের গানে যে-বেদনা নিহিত থাকে, সম্মেলক গানে তা যায় হারিয়ে। একক গানে যখন সুধীরে বলা হয় ‘যায় যদি সে যাক্‌’, তখন পরপর দুবার ‘যাক’ বলবার সুর শুনে মনে হয় কথকের অন্তর উদ্দিষ্ট জনকে যেতে দিতে চায় না বুঝি। অথচ দলবদ্ধ দ্রুত গায়নের কারুকাজ দিয়ে শেষ হওয়া সুরটি যেন বলে ‘যায় যদি সে যাক্ না!’ ‌এইরকম, নাট্যমঞ্চে সম্মিলিত কণ্ঠে দ্রুতছন্দের বাউল ঢঙে ‘লক্ষ্ণী যখন আসবে তখন কোথায় তারে দিবি রে ঠাঁই’ বলে পরস্পরের প্রতি যে-প্রশ্ন, তা একক কণ্ঠের গানে আত্মজিজ্ঞাসার ভাবে বেদনা-ভরা হুতাশ ছড়ায় বাতাসে।
 
দীর্ঘ কবিতাতেও পরে সুর দিয়েছেন রবীন্দ্রনাথ, যেমন ‘দুই পাখি’ কবিতা থেকে ‘খাঁচার পাখি ছিল সোনার খাঁচাটিতে’ গান। ‘মহুয়া’ কাব্যের কয়েকটি গানকেও কবিতার রূপ দিয়েছেন কবি। এ-কাব্যের বেশ কিছু কবিতাকে অল্প সময়ের ব্যবধানে গভীরতর ভাবের গান করে তুলেছেন আবার। শেষদিককার ‘সানাই’ কাব্যের কটি কবিতাতেও সুর যোগ করে নতুন গান সৃষ্টি করেছিলেন রবীন্দ্রনাথ। কবিতা থেকে গান, গান থেকে কবিতা, আবার সেই কবিতাকে সুরে ঢালার দরুন রূপ থেকে রূপে যাওয়া-আসার পরিচয় রবীন্দ্র-সৃষ্টির অভিনব পালা। এই সৃষ্টিলীলার সৌন্দর্য তুলে ধরবার চেষ্টায় এই ধ্বনিমুদ্রিকাটি নিবেদন করা হলো।
 
 
 
সূচি:
 
গান বসন্তে বসন্তে তোমার কবিরে দাও ডাক সম্মেলক
  বসন্তে বসন্তে তোমার কবিরে দাও ডাক ইলোরা আহমেদ শুক্লা
কথা সন্‌জীদা খাতুন
আবৃত্তি দুই পাখি কাজী মদিনা
  আব্দুস সবুর খান চৌধুরী
  কৃষ্টি হেফাজ
গান খাঁচার পাখি ছিল সোনার খাঁচাটিতে মো.সিফায়েত উল্লাহ মুকুল
কথা সন্‌জীদা খাতুন
আবৃত্তি উদ্‌ঘাত কাজী মদিনা
গান জানি তোমার অজানা নাহি গো তানিয়া মান্নান
আবৃত্তি পুরাতন লিয়াকত খান
গান অনেক দিনের আমার যে গান আজিজুর রহমান তুহিন
  আমার নয়ন তোমার নয়নতলে মিতা হক
আবৃত্তি সন্ধান আব্দুস সবুর খান চৌধুরী
গান আমার নয়ন তব নয়নের নিবিড় ছায়ায় লাইসা আহমদ লিসা
আবৃত্তি নিবেদন কৃষ্টি হেফাজ
গান অজানা খনির নূতন মণির গেঁথেছি হার সত্যম্ কুমার দেবনাথ
কথা সন্‌জীদা খাতুন
আবৃত্তি ভালোবাসা এসেছিল এমন সে নিঃশব্দ চরণে আব্দুস সবুর খান চৌধুরী
গান প্রেম এসেছিল নিঃশব্দচরণে মহিউজ্জামান চৌধুরী ময়না
আবৃত্তি অনাবৃষ্টি কৃষ্টি হেফাজ
গান মম দুঃখের সাধন ইফ্‌ফাত আর দেওয়ান
আবৃত্তি বাণী-হারা লিয়াকত খান
গান বাণী মোর নাহি আব্দুল ওয়াদুদ
  লক্ষ্মী যখন আসবে তখন ফাহ্‌মিদা খাতুন
  লক্ষ্মী যখন আসবে তখন সম্মেলক
 
 
সম্মেলক শিল্পী:
 
ইলোরা আহমেদ শুক্লা, লাইসা আহমদ লিসা, মহুয়া মঞ্জরী সুনন্দা, সুতপা সাহা, সেমন্তী মঞ্জরী
 
পার্থ তানভীর নভেদ্‌, মো. সিফায়েত উল্লাহ্‌ মুকুল, সুশান্ত সরকার, অভিজিত দাস
 
 
 
যন্ত্রানুষঙ্গ তত্ত্বাবধান: রেজোয়ান আলী
 
যন্ত্রানুষঙ্গ:
 
এস্রাজ - অসিত বিশ্বাস
 
তবলা - এনামুল হক ওমর, গৌতম সরকার, সুবীর ঘোষ, স্বরূপ হোসেন
 
মন্দিরা - নজমুল আলম খান
 
শব্দধারণ: ছায়ানট শব্দধারণ কেন্দ্র
 
শব্দমিশ্রণ: এবিএম সাজ্জাদুর রহমান
 
প্রচ্ছদ সজ্জা: ইমরুল চৌধুরী
 
 
 
প্রকাশনা-সহযোগী: গ্রামীণফোন

বিজ্ঞপ্তি সবগুলো..

আয়োজন সবগুলো..

১ পৌষ ১৪২৬
বিজয় দিবস ২০১৯
৪ পৌষ ১৪২৬
শুদ্ধসঙ্গীত উৎসব ১৪২৬